সৌদির ইতিহাসে প্রথম রাজনৈতিক দলের প্রধান চার নেতা!

Loading...

বহুল আলোচিত সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমানকে ক্ষমতাচ্যুত করতেই সৌদি আরবের ইতিহাসে এই প্রথম কোনো রাজনৈতিক দলের জন্ম হলো।

এই দলের মূল লক্ষ্যই হচ্ছে রাজতন্ত্রের পরিবর্তে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা। মধ্যপ্রাচ্য ভিত্তিক অনেক বিশ্লেষকই মনে করছেন মধ্যপ্রাচ্যের তেল নির্ভর অর্থনীতির এই দেশটির রাজতন্ত্রের পতন ঘটবে বাদশাহ সালমানের আমলেই।

নতুন এই দলটি যারা গঠন করেছেন তারা সবাই সৌদি শাসকগোষ্ঠী থেকে ভিন্ন মতাবলম্বী এবং নির্বাসিত জীবনযাপন করছেন। দলটির গুরুত্বপূর্ণ সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন

যুক্তরাজ্যপ্রবাসী শিক্ষাবিদ মাদাওয়ি আল–রশিদ, গবেষক সাঈদ বিন নাসের আল–ঘামদি, মানবাধিকারকর্মী আহমেদ আল–মাশিখস, যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী আবদুল্লাহ আলাউধ ও কানাডাপ্রবাসী ওমর আবদুল আজিজ।

ভিডিওটি দেখুন

গত বুধবার লন্ডনে ‘নিউ ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলি পার্টি’ নামে এ রাজনৈতিক দলটি গঠন হয়। গত কয়েক দশক ধরে সৌদি আরব আলে সৌদ বংশের মাধ্যমে শাসিত হয়ে আসছে এবং লন্ডনে বসে এ রাজনৈতিক দল কতটা সফলভাবে সৌদি আরবে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার কাজ এগিয়ে নিতে পারবে সেটি এখন গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন।

সৌদি আরব হচ্ছে চরমভাবে রক্ষণশীল একটি দেশ। যেখানে সব রকমের রাজনৈতিক দল নিষিদ্ধ এবং রাজতন্ত্র ও সরকারের ভুলত্রুটি নিয়ে কোনও সমালোচনা করা হলে দীর্ঘ মেয়াদের কারাদণ্ড ভোগ করতে হয়।

১৯৩২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ব্রিটিশ উপনিবেশিকদের সহায়তায় আলে-সৌদ পরিবার থেকে ইবনে সৌদ রাজতান্ত্রিক শাসনব্যবস্থা চালু করেন। সেই থেকে সৌদ পরিবার সৌদি আরব শাসন করে আসছে। সৌদি রাজতান্ত্রিক শাসকদের পেছনে আমেরিকা, ব্রিটেনসহ পাশ্চাত্যের বেশিরভাগ দেশের সমর্থন রয়েছে প্রথম থেকেই।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন