এক দুই বছর নয়, আট বছরের প্রেম, বিয়ের কথা বলতেই প্রেমিকের এ কী ভয়ঙ্কর কাণ্ড!!

Loading...

 

বিয়ের কথা বলতেই- এক দুই বছর নয়, আট বছরের প্রেম। তিন বছর আগে হয়েছে রেজিস্ট্রিও। কিন্তু বিয়ে করার কথা বলতেই স্বরূপ প্রকাশ করে প্রেমিক। ১৫ লাখ টাকা পণের দাবি করে। এমনকি বাড়িতে ডেকে প্রেমিকাকে মারধর করে ঝুলিয়ে দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে ওই প্রেমিকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের হুগলির খানাকুলে।

এ ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় কলকাতার নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়েছে ওই তরুণীকে। এদিকে অভিযুক্ত প্রেমিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ভারতের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, খানাকুলের রঞ্জিতবাটির যুবক অমিতাভ রায় ও রাউত খানার তরুণীর প্রেমের কথা জানতো দুই পরিবার। প্রেমের পাঁচ বছরের মাথায় তাদের রেজিস্ট্রিও হয়।

ভিডিওটি দেখুন

কিন্তু তার পরেই সমস্যা। রেজিস্ট্রি হয়ে গেলেও সামাজিকভাবে বিয়ে করতে কিছুতেই রাজি হচ্ছিল না প্রেমিক। প্রেমিকা ও তার পরিবার বিয়ের জন্য চাপ দিতেই আসল চেহারা প্রকাশ করে অমিতাভ। বিয়ের শর্ত হিসেবে ১৫ লাখ পণের দাবি করে অভিযুক্ত প্রেমিক।

আরও অভিযোগ রয়েছে, বিয়ে নিয়ে কথা বলতে একদিন প্রেমিকা ও তার ভাইকে বাড়িতে ডাকে অমিতাভ। তার পর সেখানেই তরুণীকে মারধরের পর গলায় ওড়নার ফাঁস দিয়ে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। ওই যুবতীর সঙ্গে থাকা ভাইয়ের চিৎকারে ছুটে আসেন প্রতিবেশীরা। তারাই উদ্ধার করেন ওই দুজনকে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রেমিককে আটক করা হলেও তার পরিবারের বাকি সদস্যরা পলাতক রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন