জানা গেল বিদিশার মৃত্যুর কারণ!

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৬ মে, ২০২২
  • ৯৫ বার পাঠিত

দিন দশেক আগেই কলকাতার টেলি অভিনেত্রী পল্লবীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। সেই জটলা খুলতে না খুলতেই নাগেরবাজারের রামগড় কলোনির বাড়ি থেকে এক মডেলের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ২১ বছর বয়সী ওই মডেলের নাম বিদিশা দে মজুমদার। নাগেরবাজার থানার পুলিশ তার মৃত্যুর বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

জানা গেছে, এর আগেও দু’বার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন বিদিশা। তবে বান্ধবী ও সহকর্মীদের বাঁধার মুখে তিনি কিছু করতে পারেননি। সবশেষ বুধবার (২৫ মে) ভোর রাত পর্যন্ত তাকে বুঝানোর চেষ্টা করেন এক বান্ধবী। তবে শেষরক্ষা হলো না। ইতোমধ্যে বিদিশার পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রের খবর, বিদিশার এক বান্ধবী থানায় ফোন করে খবর দেন। এরপর ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে বিদিশার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তার দেহের পাশে একটি সুইসাইড নোট পাওয়া গেছে। সেখানে তিনি নিজের মৃত্যুর জন্য কাউকে দায়ী করেননি। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কামারহাটি সাগর দত্ত হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ভিডিওটি দেখুন

বিদিশার সুইসাইড নোটে উল্লেখ করা হয়েছে, ক্যারিয়ার নিয়ে সমস্যায় ছিলেন তিনি। আর তাই আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন।

তবে বিদিশার বান্ধবীরা অনুভব বেরা নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন। তাদের দাবি, গত কয়েক মাস ধরেই ওই যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে ছিলেন বিদিশা। তবে একইসঙ্গে একাধিক নারীর সঙ্গে প্রেমিকের সম্পর্ক থাকায় মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন তিনি। আর সে কারণেই আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন।

এদিকে বিদিশার সিডিআর খতিয়ে দেখছে পুলিশ। চেক করা হচ্ছে তার কল ও চ্যাট লিস্ট। তিন বান্ধবীকে জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক তদন্তে অনুমান করা হচ্ছে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। কাজ না পাওয়ার হতাশার সঙ্গে প্রেমিকের বিশ্বাসভঙ্গের বিষয়টিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত তিনি কী কী কাজ করেছেন, কাজের ব্যাপারে কাদের সঙ্গে তার কথা হয়েছে সবকিছু আমলে নিচ্ছেন পুলিশ কর্মকর্তারা। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্টের পর নিশ্চিত হতে চাইছেন তারা।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
এই বিভাগের আরো খবর
[X]


সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত বিরহীমন ডক কম ২০১৫-২০২২