হিন্দু নারীর স্বেচ্ছায় ইসলাম ধর্ম গ্রহণ

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২২ মে, ২০২২
  • ৯৪ বার পাঠিত

নারায়ণগঞ্জে হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করেছেন এক নারী। রবিবার (২২ মে) নারায়ণগঞ্জ আদালদের আইনজীবী আ. রহিমের চেম্বারে ইসলামী শরিয়ত মেনে কালেমা পড়ে মুসলমান হন নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানার গোপালদী এলাকার স্বপন কুমার সাহার মেয়ে স্নেহা। ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার পরে তার নাম রাখা হয় জান্নাতুল ফেরদৌস রূম্পা।

তাকে ইসলাম ধর্মের রীতিনীতি মেনে কালেমা পড়ান আদালত সংলগ্ন বিলাসনগর বায়তুল আজিম জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন হাফেজ মাওলানা মো: ওসমান গনি। পরে নোটারী পাবলিকের হলফনামায় স্বাক্ষর করেন তিনি।

ভিডিওটি দেখুন

ইসলাম ধর্ম গ্রহণের পরে জান্নাতুল ফেরদৌস রূম্পা গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি হিন্দু ধর্মের দীক্ষায় দীক্ষিত ছিলাম। কিন্তু মুসলমান সম্প্রদায়ের সাথে চলাফেরা করে বিভিন্ন ওয়াজ মাহফিলে গিয়ে এবং বিভিন্ন ধর্মীয় আলোচনায় বসে এই মর্মে উপলব্ধি করতে পেরেছি যে, বিভিন্ন ধর্মের মধ্যে ইসলামই শ্রেষ্ঠ ধর্ম। আল্লাহ এক ও অদ্বিতীয়। আল্লাহ ছাড়া কোনো মাবুদ নাই। দুনিয়া ও আখেরাতের মঙ্গলের জন্য ইসলামই একমাত্র সঠিক পথ।

তাই আমি ইসলাম ধর্মের অনুশাসন মেনে চলার বিষয়ে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়ে আমার পুরাতন ধর্ম (হিন্দু) পরিবর্তন করে ইসলাম ধর্ম গ্রহনের চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছি এবং ইসলাম ধর্মের অনুসারী হিসেবে আমি সম্পূর্ণ স্বেচ্ছায়, সুুস্থ মস্তিষ্কে আমার নাম স্নেহা পরিবর্তন করে ইসলামী নাম জান্নাতুল ফেরদৌস রূম্পা নামে পরিচয় দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। আজ হতে মৃত্যু অবধি ইসলাম ধর্মের অনুসারী হিসেবে বহাল থাকবো।’

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
এই বিভাগের আরো খবর
[X]


সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত বিরহীমন ডক কম ২০১৫-২০২২