সৌদিতে যৌ’ন হ’য়রানির মামলায় অপরাধীর নাম প্রকাশ!

Loading...

সৌদি আরবে যৌ’ন হয়রানির অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত এক ব্যক্তিকে জেল-জরিমানা ছাড়াও জনসমক্ষে তার নাম প্রকাশের রায় দেওয়া হয়েছে।
ঐতিহাসিক এ রায় ঘোষণা করেন মদিনার একটি ফৌজদারি আদালত। দেশটিতে যৌ’ন হয়’রানির মামলায় অপরাধীর নাম প্রকাশ করার এটিই প্রথম কোনো রায়।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, শাস্তি পাওয়া ব্যক্তির নাম ইয়াসির আল-আরাভি। এক নারীকে অশ্লীল মন্তব্য করে তিনি দোষী সাব্যস্ত হন। তাকে আট মাসের জেল ও এক হাজার ৩৩০ ডলার জরিমানা করা হয়। একইসঙ্গে অনুমতি দেওয়া হয় তার নাম ও অপরাধ জনগণের সামনে প্রকাশের।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২১ সালের জানুয়ারিতে মন্ত্রিপরিষদ যৌ’ন হ’য়রানি বিরোধী আইনের ৬ অনুচ্ছেদে একটি নতুন অনুচ্ছেদ যুক্ত করেছে, যেখানে বলা হয়েছে যে যৌ’ন হয়রা’নির মামলার রায়ে দোষী সাব্যস্ত ব্যক্তির পরিচয় সংবাদপত্রে প্রকাশ করা যাবে।

ভিডিওটি দেখুন

সংশোধিত নতুন আইনে বলা হয়েছে, যৌ’ন হ’য়রানিতে অভিযুক্ত ব্যক্তি যদি দোষী সাব্যস্ত হন, তাহলে ওই ব্যক্তির নিজ খরচে স্থানীয় সংবাদপত্রে তার নামসহ রায়ের সারাংশ প্রকাশ করা যেতে পারে।

ওদিকে, মক্কা অঞ্চলের একটি আদালত এক মসজিদের ইমামকে তার গৃহকর্মীকে যৌ’ন হয়’রানির অভিযোগ থেকে খালাস দিয়ে একটি রায় দিয়েছে।

বাদী যথেষ্ট প্রমাণসহ অভিযোগ প্রমাণ করতে ব্যর্থ হওয়ায় আদালত মামলাটি খারিজ করে দেন। আপিল আদালতও ওই রায় বহাল রেখেছে এবং রায় অনুসারে চূড়ান্ত খালাসের আদেশ দিয়েছে।

সৌদি নাগরিক ওই মসজিদের ইমামের বিরুদ্ধে দায়ের করা যৌ’ন হয়’রানির অভিযোগের তদন্ত করার পর পাবলিক প্রসিকিউশন মামলাটি আদালতে রেফার করে।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন