জরিমানা করা হল লিটনকে!

Loading...

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কার সুপার টুয়েলভের ম্যাচে বিবাদে জড়িয়ে পড়েন বাংলাদেশি ওপেনার লিটন দাস ও লঙ্কান পেসার লাহিরু কুমারা। এ ঘটনায় দুইজনকেই শাস্তি দিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। এই দুইজনকে ম্যাচ ফি’র উল্লেখযোগ্য অংশ জরিমানার পাশাপাশি একটি করে ডিমেরিট পয়েন্ট দিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি।

ভিডিওটি দেখুন

দুইজনের বিরুদ্ধে আইসিসি কোড অব কন্ডাক্টের পৃথক ধারা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে, যা প্রথম মাত্রার অপরাধ। লেভেল-১ এর আওতায় কুমারাকে ম্যাচ ফি’র ২৫ শতাংশ এবং লিটনকে ম্যাচ ফি’র ১৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। কুমারার আচরণকে কোড অব কন্ডাক্টের ২.৫ নম্বর ধারা ভঙ্গ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে, যেখানে এমন কোনো ভাষা, আচরণ বা ইঙ্গিত করা হয় যা প্রতিপক্ষ ব্যাটারকে উত্তেজিত করে তোলে। লিটনের বিরুদ্ধে তোলা হয়েছে ২.২০ নম্বর ধারা ভঙ্গের অভিযোগ, যা স্পিরিট অব গেমের পরিপন্থী হিসেবে চিহ্নিত।

রবিবার (২৪ অক্টোবর) হাই ভোল্টেজ ম্যাচে লিটনকে আউট করে তার দিকে আগ্রাসীভাবে এগিয়ে যান কুমারা। এতে মেজাজ হারিয়ে লিটন মাঠেই বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন। আম্পায়ার ও দুই দলের ক্রিকেটাররা তাদের শান্ত করলেও বাঁচাতে পারেননি শাস্তির হাত থেকে। কুমারা ও লিটন দুজনকেই জরিমানার সাথে একটি করে ডিমেরিট পয়েন্ট দেওয়া হয়েছে। এবারের বিশ্বকাপে কোড অব কন্ডাক্ট ভঙ্গ করে শাস্তির ঘটনা এবারই প্রথম। দুই ক্রিকেটারই অভিযোগ ও শাস্তি মেনে নেওয়ায় কোনো আনুষ্ঠানিক শুনানির প্রয়োজন পড়েনি।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন