বিদেশ থেকে আনা মোবাইল ফোন নিবন্ধন করতে হবে যেভাবে!

Loading...

১ লা অক্টোবর থেকে অনিবন্ধিত সকল মোবাইল ফোন বন্ধ করে দিচ্ছে বিটিআরসি। ব্যবহৃত মোবাইল ফোনের আইএমইআই সম্পৃক্ত করে নিবন্ধন করা হবে এনইআইআর সিস্টেমে গ্রাহকের জাতীয় পরিচিতি নম্বর ও সিম নম্বরের (এমএসআইএসডিএন) সঙ্গে।

একই সঙ্গে এখন থেকে অনিবন্ধিত মোবাইল উৎপাদন বা আমদানি বা ক্রয়-বিক্রয় করলে টেলিযোগাযোগ আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ৩০ অক্টোবর বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘বিটিআরসি কর্তৃক জাতীয় পরিচয়পত্র ও নিবন্ধিত সিম কার্ডের সঙ্গে ট্যাগিং করে প্রতিটি মোবাইল ফোন নিবন্ধনের মাধ্যমে বিভিন্ন সরকারি সেবা গ্রহণ/প্রদান নিশ্চিত করা, অবৈধভাবে উৎপাদিত বা আমদানি করা মোবাইল ব্যবহার বন্ধের মাধ্যমে সরকারের রাজস্ব আহরণ নিশ্চিত, ব্যবহৃত মোবাইল চুরি ও অবৈধ ব্যবহার রোধ এবং জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাসমূহকে সহায়তার উদ্দেশ্যে গত ১ জুলাই ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেন্টিটি রেজিস্ট্রারের (এনইআইআর) কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। ১ অক্টোবর (আজ) থেকে সব অবৈধ হ্যান্ডসেটের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, মোবাইল ক্রয়ের আগে মেসেজ অপশন থেকে KYD ও ১৫ ডিজিটের IMEI নম্বর লিখে (উদাহরণ- KYD 123456789012345) ১৬০০২ নম্বরে পাঠিয়ে বৈধতা যাচাই করে নেওয়ার অনুরোধ জানানো হচ্ছে।

যেসব হ্যান্ডসেট বৈধ হবে না সেগুলো সম্পর্কে গ্রাহককে এসএমএস’র মাধ্যমে জানানো হবে এবং পরীক্ষাকালীন তিন মাসের জন্য নেটওয়ার্কে সংযুক্ত রাখা হবে। পরীক্ষামূলক সময় অতিবাহিত হলে সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিদেশ থেকে কেনা বা উপহার পাওয়া ফোন নিবন্ধন করা যাবে যেভাবে

বিদেশ থেকে ব্যক্তি পর্যায়ে বৈধভাবে কেনা বা উপহার পাওয়া মোবাইল ফোন সেট দেশে এনে চালু করলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নেটওয়ার্কে সচল হবে। তবে ফোন সচল হওয়ার ১০ দিনের মধ্যে নিবন্ধন সম্পন্ন করলে সেটটি বৈধ হিসেবে বিবেচিত হবে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নিবন্ধন সম্পন্ন করা না হলে সেটি বৈধ হিসেবে বিবেচিত হবে না।

ভিডিওটি দেখুন

এ বিষয়ে গ্রাহককে এসএমএস’র মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে এবং পরীক্ষাকালের জন্য নেটওয়ার্কে সংযুক্ত রাখা হবে। পরীক্ষামূলক সময় (৩ মাস) শেষ হলে হলে সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। মোবাইল ফোন সেট নিবন্ধন করা যাবে এভাবে:

ধাপ-১: www.neir.btrc.gov.bd লিংকে গিয়ে ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট নিবন্ধন করতে হবে।

ধাপ-২: পোর্টালের স্পেশাল রেজিস্ট্রেশন সেকশনে গিয়ে মোবাইল সেটের আইএমইআই নম্বরটি দিতে হবে।

ধাপ-৩: প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট’র ছবি বা স্ক্যান কপি (যেমন: ভিসা, ইমিগ্রেশন তথ্যাদি, কেনার রশিদ ইত্যাদি) আপলোড করতে হবে এবং সাবমিট বাটনটি প্রেস করতে হবে।

ধাপ-৪: সেটটি বৈধ হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিবন্ধিত হবে। মোবাইল ফোনসেটটি বৈধ না হলে এসএমএস’র মাধ্যমে গ্রাহককে জানিয়ে পরীক্ষাকালে নেটওয়ার্কে সংযুক্ত রাখা হবে।

পরীক্ষামূলক সময় পার হলে সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। মোবাইল অপারেটরের কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে গিয়েও এই সেবা গ্রহণ করা যাবে।

প্রসঙ্গত, বিদ্যমান ব্যাগেজ রুলস অনুযায়ী একজন ব্যক্তি বিদেশ থেকে শুল্কবিহীন সর্বোচ্চ দুইটি এবং শুল্ক পরিশোধ সাপেক্ষে আরও ছয়টি মোবাইল ফোন সেট আনতে পারবেন।

ব্যবহৃত মোবাইল মোবাইল ফোন সেটের বর্তমান অবস্থা যাচাই প্রক্রিয়াব্যবহৃত মোবাইল ফোনসেটের বর্তমান অবস্থা জানতে হলে:

ধাপ-১: মোবাইল ফোনসেট থেকে *১৬১৬১# নম্বরে ডায়াল করুন।

ধাপ-২: স্ক্রিনে প্রদর্শিত অপশন থেকে স্ট্যাটাস চেক অপশন সিলেক্ট করুন।

ধাপ-৩: অটোমেটিক বক্স এলে মোবাইল ফোন সেটের ১৫ ডিজিটের আইএমইআই নম্বরটি লিখে পাঠিয়ে দিন।

ধাপ-৪: হ্যাঁ বা না অপশনের একটি অটোমেটিক বক্স এলে হ্যাঁ সিলেক্ট করে নিশ্চিত করুন।

ধাপ-৫: ফিরতি মেসেজের মাধ্যমে ব্যবহৃত মোবাইল মোবাইল ফোন সেটের হালনাগাদ অবস্থা জানানো হবে। এছাড়া neir.btrc.gov.bd লিংকের মাধ্যমে বিদ্যমান সিটিজেন পোর্টাল বা মোবাইল অপারেটরের কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে গিয়েও এই সেবা গ্রহণ করা যাবে।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন