২৫ বছর পর শ্বশুর বাড়ি এসে লা’শ হলেন জামাই!

Loading...

মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলায় বিচ্ছেদের প্রায় ২৫ বছর পর শ্ব’শুর বা’ড়ি এসে লা’শ হলেন ফরজান খান (৬০) নামের এক বৃ’দ্ধ’। ‘নি’হ’ত ফরজান খান কুলাউড়া উপজেলার টিলাগাও ইউনিয়নের বিজলি গ্রামের মৃ’ত রাশিদ খানের পুত্র। আজ সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার টিলাগড় গ্রামের শ্ব’শুর বা’ড়ি’র পিছনের স’বজি ক্ষেত থেকে তার র’ক্তা’ক্ত ম’র’দে’হ উদ্ধার করে ক’মলগ’ঞ্জ থানা পুলিশ।

জানা যায়, কু’লাউ’ড়া থানার বি’জলি গ্রা’মের মৃ’ত রশি’দ খান এর ছে’লে ফরজান খান প্রায় ৩০ বছর পূর্বে বিয়ে করেন কমলগঞ্জের পতনঊষার ইউনিয়নের টিলাগড় গ্রামের ছমসুন বেগমকে। বিয়ের পর স্ত্রী ছম’সুন জানতে পারেন তার স্বা’মী নানা অ’পরা’ধে জড়িতে। এ নিয়ে সংসার জীবনের কল’হে’র জেরে বিয়ের ৫ বছর এর মাথায় সংসার জীবনের বি’চ্ছে’দ ঘটে। তাদের সংসারে তিন সন্তান ছিল। সংসার জীবনের বিচ্ছেদের পর তিন স’ন্তা’ন নিয়ে বাপের ঘরে ফিরেন ছম’সুন। সংসার বিচ্ছেদের পর ফর’জান দ্বিতীয় বিয়ে করেন কমলগঞ্জের আদমপুর ইউনিয়নের ছনগাঁও গ্রামে। এরপর প্রায় সময় স’ন্তা’নদের দেখতে প্র’থম স্ত্রীর বাড়ি’তে আসতেন ফরজান।

ভিডিওটি দেখুন

প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে রো’ববার দিবা’গত রাতের কোন এক সময় তিনি শ্ব’শুর বাড়ি আসার পর তাকে মেরে বাড়ির পিচনের ফসলি ক্ষেতের জমিতে তার লা’শ ফেলে দেয়া হয়। তার ম’রদে’হের পাশে একটি কা’চি, কা’প’ড়ের একটি বেগ ও মোবা’ইল ফোন পাওয়া গেছে। ঘটনার খবর পেয়ে কমলগঞ্জ থানার ওসি ইয়া’রদৌস হাসান এর নেতৃ’ত্বে পুলি’শের একটি দল ঘট’নাস্থ’লে পৌছে লা’শের সুর’তহা’ল তৈরি করে লা’শ উদ্ধার করে ময়’লা তদ’ন্তের জন্য ম’রদে’হ মৌ’লভী’বাজার সদর হাস’পা’তালে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিক জি’জ্ঞা’সাবাদ এর জন্য তার প্রথম সংসারের দুই ছেলে’কে আটক করে জি’জ্ঞাসা করছে পুলিশ।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন