৬০ বছরের বৃদ্ধ নানার একাধিকবার কু’কর্মের শিকারে অ’ন্ত:সত্ত্বা নাতনী

Loading...

ঢাকার ধামরাই উপজেলার চৌহাট ইউনিয়নে বৃদ্ধ নানা সফুর উদ্দিনের (৬০) কু’কর্মে রশিকার হয়ে প্রতিবন্ধী নাতনী অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সাজেদা বেগম নামে তার এক সহযোগীকে আটক করেছে কাওয়ালীপাড়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। শুক্রবার (২৪সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার চৌহাট ইউনিয়নের দ্বিমুখা পূর্বপাড়া এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

এর আগে বৃহস্পতিবার এঘটনা জানাজানি হলে রাতেই ধামরাই থানায় ওই নানা ও তার এক সহযোগীকে আসামি করে একটি মামলা করা হয়। মামলার আসামিরা হলেন- ধামরাই উপজেলার চৌহাট ইউনিয়নের দ্বিমুখা গ্রামের মৃত চান মিয়ার ছেলে সফুর উদ্দিন ও একই এলাকার মোয়া’জ্জেমের স্ত্রী সাজেদা বেগম।

ভিডিওটি দেখুন

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কয়েকমাস আগে নাতনীর বাড়িতে নিয়মিত যাতায়াতকালে তাকে একাধিকবার ধ’র্ষণ (কুকর্ম ) করেন ওই নানা। এতে সে অ’ন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। সম্প্রতি ওই পরিবারের লোকজন মেয়ের শরীরের গঠন পরিবর্তন দেখতে পান।

পরে পরিবারের লোকজন তাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান এবং পরীক্ষা করানো হলে তার গর্ভকাল ধরা পড়ে। পরে ওই মেয়েকে জিজ্ঞাসা করলে সে ওই নানার কথা জানিয়ে দেয়। এদিকে এ ঘটনা জানাজানি না করার জন্য মেয়েকে ভয়ভীতি দেখান অপর আসামি। পরে পরিবারের লোকজন থানায় অভিযোগ করেন।

এ বিষয়ে কাওয়ালীপাড়া তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মনির হোসেন বিডি২৪লাইভকে বলেন, রাতে প্রতিবন্ধী মেয়ে নানার লালসার শিকার হয়ে ৫মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে। এমন একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর অভিযান চালিয়ে এক নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়। তবে প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।তাকে ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন