ওয়ানপ্লাসের ফোন বিস্ফোরিত হলো প্যান্টের পকেটে

Loading...

ভারতীয় স্মার্টফোনের বাজারে ওয়ানপ্লাসের চাহিদা বেশ ভালো। সেই কোম্পানির সদ্য বাজারে আসা হ্যান্ডসেটই কিনা বিকট শব্দে বিস্ফোরিত হলো! তাও আবার ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির আদালতের একটি চেম্বারের ভেতর। আর তাতেই পুড়ল আইনজীবীর পোশাকও।
পুরো ঘটনায় ক্ষুব্ধ স্মার্টফোনটির মালিক। শুধু তাই নয়, চীনা মোবাইল প্রস্তুতকারী সংস্থার বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করেছেন তিনি। গত বুধবার এই ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী ওই আইনজীবীর নাম গৌরব গুলাটি। তিনি জানান, নতুন দামী ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ ৫জি মডেলের ফোনটিতে হঠাৎই আগুন লেগে যায়। পোশাকের (আইনজীবীদের গাউন) পকেটের কাছে গরম অনুভব করেন তিনি। তারপরই দেখেন পকেট থেকে ধোঁয়া বেরিয়ে আসছে। পকেটে থাকা ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ ৫জি মোবাইল ফোন সেটটিতে আগুন ধরেই এই কাণ্ড। সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে যায় হ্যান্ডসেটটি।

গৌরব বলেন, আগুন লাগার পর সঙ্গে সঙ্গেই গাউনটি খুলে ফেলি। আর ফোনটির কাছে যেতেই বিকট আওয়াজ করে সেটি বিস্ফোরিত হয়। গোটা চেম্বার ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে যায়।

ভিডিওটি দেখুন

তিনি জানান, ফোনটি একেবারেই নতুন। আগস্টের শেষ সপ্তাহেই সেটটি কিনেছিলেন তিনি। আর তার বিস্ফোরণের দিন দুয়েক আগেই সেটি ব্যবহার শুরু করেছিলেন। কিন্তু এত দামী ফোন কিনেও দু’দিনেই যে এমন ঘটনা ঘটবে, তা কল্পনাও করতে পারেননি গৌরব।

তিনি বলেন, এখনও পর্যন্ত আগের ফোন থেকে সব ডেটাও ট্রান্সফার করা হয়নি। তার আগেই এই কাণ্ড। এমনকী বিস্ফোরণের সময় ফোনটি চার্জেও বসানো ছিল না। পকেটে থাকা অবস্থায়ই হঠাৎ করে এই ঘটনা ঘটে গেল। ৩০-৩৫ হাজার টাকা দিয়ে যেন বোমা কিনেছিলাম। এই ট্রমা থেকে এখনো বের হতে পারছি না।

আইনজীবী জানান, গোটা ঘটনার জন্য তিনি ওয়ানপ্লাস এবং অ্যামাজনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করতে চলেছেন। তবে এটিই প্রথম নয়, মাস কয়েক আগেই ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ ৫জি মোবাইল হ্যান্ডসেট বিস্ফোরণের খবর প্রকাশ্যে এসেছিল। ফের এই সেটটিতে আগুন লাগল।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন