কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি নি’র্যাত’নের ভিডিও ভাইরাল!!

Loading...

কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কা’রাগা’রের অভ্যন্তরে প্রকাশ্যে ভ’য়াব’হ বন্দি নি’র্যা’তনের ঘ’টনা ঘটেছে। এ ঘটনা একটি ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় তা নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ এবং কারা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মধ্যে।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায় জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে বন্দি বিলাসের দুই হাত পিঠ’মোড়া করে বেঁধে মাটিতে ফে’লে বে’ধড়’ক পে’টা’নো হচ্ছে। দীর্ঘ সময় ধরে চলা এই নি’র্যা’ত’নে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে কারা হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। কিছুটা সুস্থ হওয়ার পর তাকে ফের কা’রাগা’র সেলে পাঠানো হয়।

কারা অধিদপ্তর সূত্র জানায়, ভারতের পশ্চিম ত্রিপুরা রাজ্যের দুর্গাপুর গ্রামের আবদু মিয়ার ছেলে শাহজাহান বিলাস (কয়েদি নম্বর ৭১৫১/এ) ডা’কা’তি ও হ-ত্যা মা’ম’লার ৫৮ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আ’সা’মি। ২৬ বছর ধরে তিনি কুমিল্লা কা’রাগা’রে ব’ন্দী। সম্প্রতি তিনি ১২ পিস ই’য়া’বা ট্যা’বলে’ট, এক পু’রিয়া গাঁ’জা, নগদ ৬০০ টাকাসহ কা’রার’ক্ষীদের হাতে ধরা পড়েন। এর পর তাকে কা’রাভ্য’ন্তরে কেস টেবিলের সামনে ডেকে জি’জ্ঞাসাবাদ করেন জেল সুপার শাহজাহান আহমেদ।

ভিডিওটি দেখুন

এদিকে তোলপাড় সৃষ্টি করা ভিডিওটি ভাইরাল করার অভিযোগে গত বৃহস্পতিবার কুমিল্লা কা’রাগা’রের প্রধান কা’রার’ক্ষী মোহাম্মদ শরীফ ও কা’রার’ক্ষী অনন্ত চন্দ্র দাসকে সাময়িক ব’রখাস্ত করা হয়েছে। ব’রখাস্ত হওয়ার পর গতকাল কা’রার’ক্ষী অনন্ত চন্দ্র দাস আ’ত্ম’হ-ত্যা-র চেষ্টা করেন। আ’শঙ্কাজনক অ’বস্থায় উ’দ্ধার করে তাকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কুমিল্লার জেল সুপার শাহজাহান আহমেদ বলেন, গত ১২ এপ্রিল ব’ন্দি বি’লাসের ওয়ার্ডে তল্লাশি চালিয়ে ই’য়া’বা, গাঁ’জা, সি’গা’রে’ট ও নগদ টাকা জ’ব্দ করা হয়। পরে তাকে কে’স টেবিলে ডেকে এনে মা’দ’ক ধ্বং’স ও জ’ব্দ করা টাকা সরকারের কো’ষাগা’রে জমা দেওয়ার কথা বললেই সে উচ্ছৃঙ্খল আ’চরণ করে। এ জন্য তাকে ল’ঘু শা’স্তি দেওয়া হয়।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন