ঘরে চাল নেই, স্ত্রী-সন্তানরা না খে;য়ে আছে শু;নে ফাঁ;স দিলেন ব্যবসায়ী!

Loading...

ঘরে চাল না থাকায় সন্তা;নেরা না খেয়ে আছে। স্ত্রীর কাছে এমন কথা শুনে গলায় ফাঁ;স নিয়ে আ;ত্মহ;ত্যা করেছেন এক ওষুধ ব্য;বসায়ী। শুক্রবার দু;পুরে মাগু;রার না;কোল বা;জারে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়;সূত্রে ;জানা গেছে, মৃ;ত বিপ্লব কুমার রায় শ্রীপুর উপজেলার নাকোল গ্রামের মৃ;ত বিনয় কুমা;র রায়ের ছেলে। স্থানীয় নাকোল বা;জারের একজন সৎ ব্যবসায়ী তিনি।

সাম্প্রতিককালে তার ব্যবসা ভালো যাচ্ছিলো না। এলাকায় বেশকিছুও ধা;রদে;নায় পড়ে যান তিনি। আর তাই বাড়ির ৩ শতাংশ জমি পর্যন্ত বি;ক্রি ক;রে দেনা পরিশোধ করেন। তারপরও স্ত্রী ও দুটি ছেলে;মেয়ে নিয়ে সংসা;র চালা;নো ক;ষ্টকর হয়ে পড়েছিল তার।;

ভিডিওটি দেখুন

নি;হ;তের ছোট;ভাই বি;জন রায় জানান, দুপুরে তিনি বাজার থেকে বাড়ি; ফিরে স্ত্রী ডলি রায়কে খাবার দিতে বলেন। কিন্তু ঘরে চাল না থাকায় দুপুরে রান্না হয়নি। ছেলেমেয়ে;রাও না খেয়ে আছে। এ;মন ক;থা শোনার পর বাড়ির পাশে নদীতে গোসল করতে যাওয়ার কথা বলে বাজারে নিজের ওষুধের দোকানে ফিরে যান বিপ্লব।

পরবর্তীতে দুপুর ৩টার দিকে সেখানে;ই তিনি ফ্যা;নের সঙ্গে গা;ম;ছা বেঁ;ধে গ;লায় ফাঁ;স নিয়ে; আ;ত্মহ;ত্যা করে;ন। পরে প্রতিবে;শী ব্যবসা;য়ীরা জানতে পেরে পুলি;শকে খ;বর দেন।

শ্রীপুর থানার ওসি সু;কদেব রায় ঘ;টনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনা;য় থানায় একটি অপমৃ;ত্যু মা;ম;লা রুজু করা হয়েছে।

এ বিষয়ে শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিউজা উল জান্নাহ বলেন, আর্থিক সংকটের কারণে একজন ব্যক্তি যদি আত্মহত্যা করে থাকেন সেটি দুঃখজনক। আমরা অবশ্যই যথাসাধ্য ওই পরিবারের পাশে থাকার চেষ্টা করব।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন