প্র’তি’বাদী সেই যমজ ভাইবোনকে গ্রে’ফ’তার করলো ইসরায়েল!

Loading...

পূর্ব জেরুজালেমের শেখ জারাহ এলাকা থেকে ফিলিস্তিনিদের উচ্ছে;দ বন্ধে হ্যাশট্যাগ সেইভ শেখ জারাহ লিখে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তিন মাস আগে প্রচার শুরু করেছিলেন মুনা আল-কুর্দ ও তার যমজ ভাই মোহাম্মদ আল কুর্দগ।

রোববার ২৩ বছর বয়সী যমজ ওই দুই অধিকারকর্মীকে গ্রে;ফতার করেছে ইসরায়েলের পুলিশ।

সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা ও রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, শনিবার শেখ জারাহ এলাকায় ফিলিস্তিনিদের উচ্ছেদের প্রতিবাদে বি;ক্ষোভ চলা;কালে ইসরায়েলের পুলিশের হাতে গ্রে;ফতার হন আল-জাজিরার সাংবাদিক গিভারা বুদেইরি। আন্তর্জাতিক মহল ওই ঘট;নায় নি;ন্দা জা;নালে ক;য়েক ঘণ্টা পর মুক্তি পান বুদেইরি।

ফিলিস্তিনের সংবাদমাধ্যম ওয়াফার প্রতিবেদনে বলা হয়, ;গ্রেফতা;রকৃত যমজ ভাই-বোনের বাবা নাবিল আল-কুর্দ সাংবাদিকদের বলেন, শেখ জারাহে তাদের বাড়িতে হানা দেয় ইসরায়েলের পুলিশ। মুনাকে সে সময় গ্রেপ্তার করা হয়।

ভিডিওটি দেখুন

মুনা ও মোহাম্মদের আইনজীবী নাসের ওদেহ থানার বাইরে বলেন, শুধু মুনা নয়, মোহাম্মদকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ‘জননিরাপত্তায় বিঘ্ন সৃষ্টি’ ও ‘সহিংসতায় অংশ নেয়ার’ অভিযোগ আনা হয়েছে।

অধিকারকর্মীদের বাবা নাবিল ফোনে সংবাদমাধ্যম এপিকে বলেন, ‘আমার ছেলেমে;য়েকে গ্রে;ফতার করা হয়েছে, কারণ আমরা তাদের (ইসরায়েল) বলেছি, ঘর ছেড়ে যাব না। তারা চায় না, কেউ তাদের মতা;মত জানাক, সত্য কথা বলুক। তারা আমাদের চুপ করিয়ে দিতে চায়।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করা ভিডিওতে দেখা যায়, হাতকড়া পরিয়ে মুনাকে তার বাড়ি থেকে বের করছে ইসরায়েলি পুলিশ। ওই সময় পরিবারের সদস্যদের তিনি বলছেন, ‘তোমরা ভয় পেয়ো না।’

ইসরায়েল অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেম থেকে আল-জাজিরার সাংবাদিক হোদা আবদেল-হামিদ বলেন, ‘মুনা বলেছেন তাকে বিশেষভাবে গ্রে;প্তারের কারণ শেখ জারাহ থেকে জো;র করে যেসব পরিবার;কে উ;চ্ছেদ করা হচ্ছে, তাদের সবার কণ্ঠস্বর হয়ে উঠছিলেন তিনি।’

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন