ক্যান্সার আ’ক্রান্ত মা’কে ফে’লে পা’লিয়েছে সন্তান!

Loading...

ক্যা’ন্সারে আ’ক্রান্ত মাকে বরিশাল শেবাচি’ম হাসপাতালের মহিলা সার্জারি ওয়ার্ডে ফেলে রে’খে পালিয়ে’ছে তার সন্তান। মু’মূর্ষু অব’স্থায় হাসপাতালে শষ্যাশায়ী নুরজাহান বেগম নগরীর বটতলা এলাকার মানিক তালুকদারের স্ত্রী।’

শেবাচিমের সার্জারি ওয়ার্ডের ইনচার্জ নার্স রেখা জানান, দীর্ঘদিন থেকে ক্যান্সারে আক্রান্ত নুরজাহান বেগমকে গত ২৫ মার্চ মহিলা সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। গত ১ এপ্রিল তাকে ছাড়পত্র দেয়া হলেও ভর্তির পর থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় থাকা নুরজাহানের ছেলের কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। তিনি একা হাঁটতে চলতে পারেন না। এর কারণে অন্য রোগীদের সমস্যা হচ্ছে।

ওই ওয়ার্ডের একাধিক রোগীর স্বজনরা জানান, নুরজাহান বেগমের ভাষ্যমতে তিনি নগরীর বটতলা এলাকার মানিক তালুকদারের স্ত্রী। তার এক ছেলের নাম সোহাগ ও আরেক ছেলের নাম বাবু তালুকদার।

ভিডিওটি দেখুন

শেবাচিমের ক্যান্সার রেডিও থেরাপি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. আ. ন. ম মাইনুল ইসলাম জানান, প্রথমে দুই মহিলা নুরজাহানকে চেম্বারে নিয়ে আসার পর অসহায় বললে ভিজিট না রেখে ফ্রি চিকিৎসা দিয়ে শেবাচিমে ভর্তি করার

জন্য বলেছি। এরপর নুরজাহানের এক ছেলে তার মাকে শেবাচিমে ভর্তি করিয়েছেন। পরবর্তীতে দুইদিন নুরজাহানের সঙ্গে একজন মহিলা হাসপাতালে ছিলেন। তার সঙ্গে নুরজাহানের ছেলের বাগ বিতণ্ডা হলে তিনি চলে যান। এরপর নুরজাহানের ছেলেরও কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।

তিনি আরো জানান, রোগীর শারিরিক অবস্থা ভালো না। এর মধ্যে আমাদের বিভাগে কোনো ইন্টার্নি নেই। বিকেলে কোনো চিকিৎসকও নেই। এরমধ্যে রোগীর কিছু হলে কে দেখবে।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন