পালিয়ে বেড়াচ্ছে সেই কাজের মেয়ে, কিছুটা সুস্থ গৃহকত্রী

Loading...

গৃ’হকত্রীকে নি’র্ম’ম নি”র্যা’তন করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে পা’লানো গৃ’হকর্মী রেখা বারবার নিজের অবস্থান পা’ল্টাচ্ছে। ঘটনার পর মালিবাগেই অবস্থান করে সে।

তারপর যায় ডেমরায়। চ্যানেল 24 এ আলোচিত এ সংবাদ প্রচারের পর রেখার গ্রামের বাড়ি ঠাকুরগাঁওয়ের লো’কজন বলছেন, তাকে পাওয়া মাত্রই পু’লিশে দেবেন।

মালিবাগে পিডি’বির সা’বেক প্রকৌশলী হাজী আব্দুল লতিফ ১৯৮৬ সালে তৈরি করেন বাড়ি। ৯০ সালে পুরো পরিবার নিয়ে খিলগাঁও থেকে চলে আসেন মালিবাগে।

তিনি মা”রা যাবার আগেই বাড়ির ফাঁ’কা জায়গায় ছোট ছোট ঘর করে ভাড়া দিয়েছিলেন। সেখানেই একটি ঘরে গত বছর শুরুতে স্বা’মীসহ ভাড়া ওঠে রেখা।

এরপর প্রায় ১ বছর বিলকিস বেগমের মেঝ মেয়ে মেহবুবা জাহান বুলবুলির বাসায় কাজ করে রেখা। গেল ৭ জানুয়ারি ছে’ড়ে দেয় কাজ, চলে যায় অন্যখানে। ১৬ জানুয়ারি সার্বক্ষণিক থাকার কথা বলে ফিরে আসেন এ বাসায়। এর দুদিন পর বাসায় কেউ না থাকার সুযোগে গৃ’হকত্রী বিলকিস বেগমকে নি’র্ম’ম নি”’র্যা’তন করে নগদ টাকা, স্বর্ণসহ টিভি ও মোবাইল নিয়ে পা’লিয়ে যায় সে।

ভিডিওটি দেখুন

এ ঘটনা নিয়ে চ্যানেল 24 এ সংবাদ প্রচারের পর আলোচনা শুরু হয় সর্বত্র। মাঠে নামে আ’ইনশৃংখলা র’ক্ষাবা’হিনী। জানা যায়, ঘটনার পর ডেমরায় যায় রেখা।

তারপর উত্তরাঞ্চলের ঠাকুরগায়ে নিজ গ্রামের দিকে রওনা দিয়েছে সে। স্থানীয়রা জানাস, রেখার বাবা আফা হোসেন ঋ’ণের দায়ে ৪/৫ বছর আগে প’রিবারসহ ঢাকায় পাড়ি জমায়। ঘটনার নি’ন্দা জানিয়ে তারা বলছেন, দেখামাত্রই পু’লিশে দেয়া হবে এই ভ’য়ং’কর গৃ’হকর্মীকে।

জী’বনের শেষ বয়সে যিনি শি’কা’র হলেন নৃ”শংস নি”র্যা’তনের। সেই বিলকিস বেগম এখনো চি’কিৎসাধীন রাজধানীর একটি হা’সপাতা’লে। মাথায় অ’স্ত্রো’প’চারের পর কেবিনে আনা হয়েছে তাকে। শ’ঙ্কামু’ক্ত না হলেও আগের চেয়ে এখন অনেকটাই উ’ন্নতি হয়েছে তার অবস্থা।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন