বাংলাদেশ আমার হৃদয়ে রয়েছে: মদিনার গভর্নর!

Loading...

সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম (বার) মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) মদিনার গভর্নর প্রিন্স ফয়সাল বিন সালমানের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠককালে মদিনার গভর্নর বাংলাদেশি অভিবাসীদের দক্ষতা ও সততার জন্য তাদের প্রশংসা করেন।

গভর্নর বলেন, বাংলাদেশি অভিবাসীরা সৌদি আরবের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছেন। অভিভাবক হিসেবে বাংলাদেশি অভিবাসীদের দেখাশুনা করা তার দায়িত্ব বলে গভর্নর উল্লেখ করেন।

গভর্নর প্রিন্স ফয়সাল বিন সালমান আরও জানান, মদিনায় বাংলাদেশি অভিবাসী শ্রমিকদের জন্য কোম্পানির অর্থায়নে আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন আবাসিক কম্পাউন্ড তৈরি করা হচ্ছে, যেখানে সুন্দর পরিবেশের পাশাপাশি উন্নত মানের খাবার ও বিনোদনের ব্যবস্থাও থাকবে।

ভিডিওটি দেখুন

বাংলাদেশি অভিবাসী শ্রমিকরা পরিবার পরিজন ছেড়ে দূর পরবাসে বসবাস করছেন। তাদের এই ত্যাগের কথা উল্লেখ করে গভর্নর বলেন, সৌদি আরবে তাদের অবস্থানকে আরও সহজ ও আরামদায়ক করার বিষয়ে তিনি আন্তরিকভাবে চেষ্টা করে যাচ্ছেন।
তিনি বাংলাদেশের সঙ্গে সৌদি আরবের ঘনিষ্ঠ ভাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্কের বিষয় তুলে ধরে জানান, বাংলাদেশ তার হৃদয়ে রয়েছে।

বৈঠকে রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। বাংলাদেশি অভিবাসীদের বিভিন্ন বিষয়ে সাহায্য সহযোগিতা করার জন্য রাষ্ট্রদূত মদিনার গভর্নরকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

এছাড়াও রাষ্ট্রদূত করোনাকালীন বাংলাদেশি অভিবাসীদের চিকিৎসা প্রদান ও জরুরী খাদ্য সাহায্য প্রদানের জন্য গভর্নরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। এ সময় রাষ্ট্রদূত সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এর আগে রাষ্ট্রদূতকে গভর্নর প্রিন্স ফয়সাল বিন সালমান তার কার্যালয়ে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান। খুবই হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন