প্রবাসী ভাইয়েরা সাবধান, নিজের বিপদ নিজেই ডেকে আনবেন না!

Loading...

প্রবাসীরা ইমুতে অডিও ভিডিও কলের ফাঁদে পড়ে হারাচ্ছে লাখ লাখ টাকা। অনেক প্রবাসী নারীর লোভে পড়ে বুঝে না বুঝে এই ফাঁদে পা দিয়ে হয়েছেন নিঃশ্ব। প্রবাসী শ্রমিকদের টার্গেট করে একটি নারী চক্র অনলাইন ভিত্তিক সোশ্যাল মাধ্যমগুলোতে সক্রিয় রয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে এই চক্রের উপস্থিতি বেশ লক্ষনীয়। বিভিন্ন পেশার মেয়েরা জড়িয়ে পড়েছেন এই অপকর্মে। বেছে নিয়েছেন অবৈধ এবং অসামাজিক কার্যকলাপ। প্রবাসী ভাইদেরকে বিভিন্নভাবে ফাঁদে ফেলে হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা।

প্রবাসী ভাইদেরকে টার্গেট করে একাধিক ফেইক ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরনের উত্তেজনামুলক ছবি পোস্ট করে। তারা ফোন সে’ক্স করার আহ্বান

জানিয়ে বিকাশ এবং ইমো নাম্বার ফেইসবুক পোস্টের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। বিকাশের মাধ্যমে টাকা পাঠিয়ে আগেই বুকিং দিতে হয় এই অপকর্মে লিপ্ত হবার জন্য।

ইমু এবং ভাইবারে অডিও ভিডিও সে’ক্স করার অফার করে বিভিন্ন দামে। এ যেন এক ভারচুয়াল পতিলালয়। ফোন কলের মাধ্যমেই যৌন আনন্দ দেয়ার মাধমে ঐসব মেয়েরা প্রবাসীদের কষ্টের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

ভিডিওটি দেখুন

এইভাবে নারী চক্র গুলো প্রবাসীদের প্রথমে অডিও ভিডিও সে’ক্সের মাধ্যমে সরাসরি শা’রীরিক সম্পর্কের প্রলোভন দেখিয়ে দেশে আসারও প্রস্তাব দেয় বলে বিভিন্ন প্রবাসীদের সূত্রমতে জানা গিয়েছে। ‘

ধারণা করা হয়, মালয়েশিয়াসহ মধ্য প্রাচ্যের দেশগুলোর অনেক প্রবাসীরা এইসব অপরাধে জড়িয়ে পড়ছেন। এই বিষয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক প্রবাসী ভাই বলেন,

তার আশেপাশে থাকা অনেক প্রবাসীই এই ফাঁদে পা দিচ্ছেন এবং অনেক টাকা হারাচ্ছেন। বাংলাদেশ পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিটের প্রতি বিষয়টিকে খতিয়ে দেখার জন্য অনুরোধ করেছেন ঐ প্রবাসী।

প্রবাসী ভাইদের প্রতি অনুরোধ, দয়া করে আপনারা জেনে শুনে এইসব অপকর্মে লিপ্ত হবেন না। আপনাদের হাড়ভাঙ্গা

পরিশ্রমের টাকার অপব্যবহার করবেন না। আপনার টাকা পাঠানোর জন্য তাকিয়ে থাকে আপনার মা, বাবা, সন্তান এবং স্ত্রী।

লেখকঃ এডমিন প্যানেল থেকে মোঃ সারোয়ার হোসেন।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন