রাস্তায় পড়ে ছিল ইমামের লা’শ! এলাকা জুড়ে আ’তঙ্ক!

Loading...

সিলেটের বিশ্বনাথে রাস্তায় পড়ে থাকা মিজান আহমদ (৫৭) নামের এক ই’মামের ম’রদেহ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে ক’রোনাভা’ইরাস আ’তঙ্ক দেখা দেয়। পরে চিকিৎসকরা জানান, ক’রোনাভা’ইরাসে নয়, উচ্চ র’ক্তচাপে স্ট্রোক করে মৃ’ত্যু হয় তার।

বৃহস্পতিবার (২৮ মে) দুপুরে উপজে’লার কান্দিগ্রাম রেলওয়ে সড়কের পাশে পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসীর সহায়তায় তাকে উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান। প্রশা’সনের অনুমতিক্রমে এদিন সন্ধ্যায় তার ম’রদেহ গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সাংবাদিক এমদাদুর রহমান মিলাদ জানান, প্রায় ৩০ বছর ধরে খাজাঞ্চি ইউনিয়নের বিলপার গোবিন্দনগর জামে ম’সজিদে ইমামতি করে আসছিলেন মিজান আহমদ। পাশাপাশি স্থানীয় একটি মা’দ্রাসায় শিক্ষকতাও করতেন তিনি।

খাজাঞ্চি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তালুকদার গিয়াস উদ্দিন জানান, ইমাম মিজানের উচ্চ র’ক্তচাপ ছিল। এদিন তিনি ম’সজিদের মোতোওয়াল্লিকে জোহরের না’মাজ পড়াতে বলে পাশের গ্রামে দাওয়াত খেতে গিয়েছিলেন।

ভিডিওটি দেখুন


করোনা
বেলা ২টার দিকে স্থানীয় লোকজন কান্দিগ্রাম-রেলওয়ে সড়কের পাশে অ’চেতন অবস্থায় তাকে পড়ে থাকতে দেখে আমাকে খবর দেন। দাওয়াত খেয়ে ফেরার পথে তিনি স্ট্রোক করেছেন বলে ধারণা করছেন চেয়ারম্যান।

পরে স্থানীয় ব্যক্তিদের সহযোগিতায় ই’মামকে উ’দ্ধার করে উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃ’ত ঘোষণা করেন।

বিশ্বনাথের ভারপ্রাপ্ত উপজে’লা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. কামরুজ্জামান বলেন, সড়কে ওপর লা’শ দেখে এলাকায় মানুষের মধ্যে ক’রোনাভা’ইরাস আ’তঙ্ক দেখা দিয়েছিল। পরে চিকিৎসকেরা নিশ্চিত করেছেন, ঘটনাস্থলে উচ্চ র’ক্তচাপের কারণে স্ট্রোক করেছেন মিজান আহমদ।

এতেই তার মৃ’ত্যু হয়েছে। চিকিৎসকের বরাত দিয়ে বিশ্বনাথ থা’নার ভারপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ওসি) শামীম মুসা জানান, মিজান আহমদ উচ্চ র’ক্তচাপের কারণে স্ট্রোক করে মা’রা গেছেন। তাঁর বাড়ি চাঁদপুরে। বিশ্বনাথে জা’নাজা শেষে বৃহস্পতিবার লা’শ চাঁদপুরে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন