ঈদের আগে ‘কঠোর যে সিদ্ধান্ত’ গেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাছে!

Loading...

বাংলাদেশে করো’না সংক্রমণ ঠেকাতে সাধারণ ছুটির মেয়াদ আরেক দফা বাড়িয়ে ৩০ মে পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বুধবার বিকালে এই তথ্য জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সকালে সাধারণ ছুটির মেয়াদ ৩০ মে পর্যন্ত বাড়িয়ে সরকারি আদেশ জারি হবে বলে জানান তিনি। এর মধ্যে কিছু বিধি-নিষেধ শিথিল হলেও ঈদের সময় চলাচল কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাধ্যমে।

বুধবার এ তথ্য নিশ্চিত করে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, সাধারণ ছুটির এ সময়টাতে গণ-পরিবহন চলবে না। এমনকি ঈদের আগের ৪ দিন এবং পরের ২ দিন মোট ৭ দিন যানবাহন চলাচল কঠোরতা অবলম্বন করা হবে।

এর আগে সরকারি কর্মচারী-কর্মক’র্তাদের ঈদের ছুটিতে কর্মস্থল ত্যাগ না করার নির্দেশ দিয়েছিল সরকার। সে সময় সব ধরনের গণপরিবহন বন্ধ থাকবে বলেও জানানো হয়।

ছুটির ক্যালেন্ডার অনুযায়ী, ২১ মে শবে কদরের ছুটি রয়েছে, ২২মে এবং ২৩ মে সাপ্তাহিক ছুটি এবং ২৪ থেকে ২৬ মে পর্যন্ত ঈদের ছুটি রয়েছে।

ভিডিওটি দেখুন


করোনা
করো’নার সংক্রমণ রোধে সরকারি-বেসরকারি অফিস সমূহ প্রথম দফায় ২৬ মা’র্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা হয়।

ওই ছুটির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই করো’নার সংক্রমণ বাড়তে থাকায় সাধারণ ছুটি আরও এক সপ্তাহ বাড়িয়ে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত করা হয়। এরপর ১২ ও ১৩ এপ্রিল সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে ১৪ এপ্রিল বাংলা নববর্ষের নির্বাহী আদেশের ছুটিকেও এর সঙ্গে যু’ক্ত করে দেওয়া হয়।

এরপর আরেক দফা ছুটি বাড়িয়ে ১৫ এপ্রিল থেকে ২৩ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়। ২৪ ও ২৫ এপ্রিল যথাক্রমে শুক্র ও শনিবারের সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় এই ২ দিনকেও সংযু’ক্ত করা হয় সাধারণ ছুটির সঙ্গে। পরে ২৩ এপ্রিল জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় আরেক প্রজ্ঞাপনে ৫ মে পর্যন্ত এই ছুটির মেয়াদ বাড়ায়।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন