তাবলিগ জামাত গন্ডমূর্খদের সংগঠন, এটা নিষিদ্ধ করুন : তসলিমা নাসরিন!

Loading...

সরকারি নির্দেশ অমা’ন্য করে দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজে তাবলিগ জামাতের ধর্মীয় জমায়েত করায় ভারতে করোনা ছড়িয়েছে দাবি করে তাবলিগকে নি’ষিদ্ধের দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। ওই মসজিদে আয়োজিত তাবলিগ জামাতে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে অন্তত ১২ জন এরই মধ্যে করোনায় আক্রা’ন্ত হয়ে মা’রা গেছেন।

তাদের মধ্যে ৬৪৭ জনের দেহে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি শনা’ক্ত করা হয়েছে। এ অবস্থায় তাবলিগ জামাত নি’ষিদ্ধ করার দাবিতে সরব হয়েছেন লেখিকা তসলিমা নাসরিন। টুইটে নিজের ক্ষো’ভ প্রকাশ করেছেন তিনি। টুইটারে তিনি লেখেন, তাবলিগ জামাতের উদা’সীনতার জন্য বহু মানুষের প্রা’ণহা’নি হচ্ছে। তাই তাবলিগ জামাতকে নি’ষিদ্ধ করা উচিত।

এর আগেও টুইট করে নিজামুদ্দিনের জমায়েতের প্রসঙ্গে ক্ষো’ভ প্রকাশ করেন তসলিমা। আগে তিনি লিখেছিলেন, তাবলিগ জামাত হচ্ছে গ’ন্ডমূ’র্খদের সংগঠন। এটাকে উজবেকিস্তান, কাজাখাস্তান, তাজাকিস্তানের মতো দেশ এই প্রতিষ্ঠানকে নি’ষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। জামাতের সঙ্গে পরোক্ষে যোগ রয়েছে সন্ত্রা’সবাদের। এটাকে বিশ্বের সব দেশে নি’ষিদ্ধ করা উচিত।

ভিডিওটি দেখুন

এছাড়া মালয়েশিয়ায় করোনা আক্রা’ন্তের মৃত্যুর প্রসঙ্গ টেনে তসলিমা টুইট করেন। তিনি লিখেছিলেন, ‘মালয়েশিয়ায় মৃত্যুর সঙ্গে তাবলিগ জামাতের যোগ রয়েছে। তারপরেও ভারত কেন জমায়েত করতে দিল?’ ভারতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আ’ক্রান্তের সংখ্যা।

সং’কট ক্র’মশ ঘ’নীভূত হচ্ছে, এর পেছনে অন্যতম কারণ দিল্লির নিজামউদ্দিন মারকাজের তাবলিগ জামাত। মারকাজ প্রধান মাওলানা সাদ কান্দলভি সরকারের নি’র্দে’শ অমান্য করে জমায়েত করায় এই পরি’স্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

ভ’য়াব’হ এই পরি’স্থিতি কিভাবে মো’কাবেলা করা যাবে সেটা নিয়ে ঘুম হা’রাম কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলির। এরই মধ্যে মহামা’রি ছড়ানোর অভিযোগে তাবলিগ প্রধান মাওলানা সাদ কান্দলভির বি’রু’দ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের জন্য খুঁজছে পুলিশ। এর মধ্যেই জানা গেছে, কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন মাওলানা সাদ। অজ্ঞাত স্থান থেকে গোপন অডিওবার্তায় মাওলানা সাদ নিজেই এ কথা জানিয়েছেন।

নিচের ভিডিওটি মিস করেন নি তো?
লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন